কুমারখালীতে কলার বাম্পার ফলন ॥ ন্যায্য মূল্য পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি

kushtiardiganta
By kushtiardiganta August 9, 2014 06:39

577,024 total views

কুষ্টিয়ার খবর

  • “আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস”এর হাকিকত kushtia Hashem Mawlana

    -অধ্যাপক মাওঃ আবুল হাশেম আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসের তাৎপর্য ঃ আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসকে কুরআন-হাদীসের পরিভাষায় যথাক্রমে ‘তাওয়াক্কুল আলাল্লাহ’ ও ‘ঈমান বিল্লাহ’ বলা হয়। আর এ দুটি ঈমানের মৌলিক অংশের সাথে ওৎপ্রোত ভাবে জড়িত। আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস ছাড়া ঈমান পূর্ণতা লাভ করতে পারে না। তাই আল্লাহর ওপর ঈমান আনা যেমন ফরজ তেমনি পূর্ণ আস্থা স্থাপন করাও ফরজ। এটা তাওহীদের সর্বোচ্চ স্তর ও সর্বোত্তম এবাদত। 55,001 total views, 241 views today

    55,001 total views, 241 views today

  • ২৪ আগষ্ট সদরপুর ইউনিয়নের নির্বাচন চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল nik

    স্টাফ রিপোর্টার॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছে। গতকাল সোমবার মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী সদরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিয়াত আলী লাল মাষ্টার, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও সদরপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান রবিউল হক, বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী সদরপুর ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি মোশারফ হোসেন মুসা, বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী ছেকের আলী, সদরপুর ইউনিয়ন জামায়াতের পূর্ব শাখার সভাপতি ডাঃ রুহুল আমিন, 54,979 total views, 241 views today

    54,979 total views, 241 views today

  • ২ দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২০, আহত শতাধিক acsident

    নিজস্ব প্রতিনিধি : ২দিনে সড়ক দূর্ঘটনায় সারাদেশে ২০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে শতাধিক ব্যক্তি। সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে এ দূর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে। সিলেটের দণি সুরমায় বুধবার ভোররাতে একটি বাস খাদে পড়ে চার জনের মৃত্যু হয়েছে। দণি সুরমা থানার ওসি মো. মোরছালিন জানান, নূর আনন্দ পরিবহনের বাসটি ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে যাওয়ার পথে বুধবার ভোররাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের অতিরবাড়ি এলাকায় দুর্ঘটনায় পড়ে। তিনি জানান, চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক কিশোরী, এক নারী ও দুই পুরুষ যাত্রী নিহত হন। আহত হন আরো অন্তত ২০ জন। 55,014 total views, 241 views today

    55,014 total views, 241 views today

  • ১৪ হাজার হেক্টর জমির ফসল হারিয়ে দিশেহারা কুষ্টিয়ার হাজারো কৃষক kushtia vagitable

    স্টাফ রিপোর্টার : কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে তছনছ কুষ্টিয়ার ৪ উপজেলার অন্তত ১৫টি ইউনিয়ন। ঝড় আর শিলাবৃষ্টি বদলে দিয়েছে এ জেলার কৃষিখাতের চিত্র। ১৪ হাজার হেক্টর জমির ফসল হারিয়ে হাজারো কৃষক এখন দিশেহারা। বাড়ি-ঘর আর ফসল হারিয়ে নিঃস্ব প্রায় ১০ হাজার কৃষক এখন মানবেতর জীবনযাপন করছেন। কৃষি অধিপ্তরের তথ্যমতে, ৮ হাজার হেক্টর জমির ধান, ভুট্টা, করল্লা, পান, শসা, তামাক, গম ও মরিচ সহ অর্থকরী ফসল একেবারেই ধ্বংস হয়ে গেছে। 54,968 total views, 241 views today

    54,968 total views, 241 views today

  • হরতালের সমর্থনে কুষ্টিয়ায় শিবিরের পিকেটিং ও মিছিল kushtia town sibi misil

    স্টাফ রিপোর্টার: ২০ দলীয় জোটের ডাকা অবরোধের পাশাপাশি আহুত ৭২ ঘন্টা হরতালের সমর্থনে কুষ্টিয়ার বড় বাজারে মিছিল ও পিকেটিং করেছে ইসলামী ছাত্রশিবির কুষ্টিয়া শহরের নেতাকর্মীরা। সোমবার সকাল ৮ টায় শহরের অফিস সম্পাদক  আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে শহরের বড় বাজারে মিছিল ও পিকেটিং করে নেতাকর্মীরা। 54,954 total views, 241 views today

    54,954 total views, 241 views today

  • হরতালে চলবে ফাযিল পরীক্ষা hortal

    ইবি প্রতিনিধি ॥  জামায়াতের ডাকা ২৪ ঘণ্টার হরতালেও চলবে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিতব্য বুধবারের ফাযিল পরীক্ষা। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আবদুল হাকিম সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জানা যায়, মানবতা বিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সেক্রেটারী জেনারেল আলী আহসান 54,943 total views, 241 views today

    54,943 total views, 241 views today

কুমারখালীতে কলার বাম্পার ফলন ॥ ন্যায্য মূল্য পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি

NYXমাহমুদ শরীফ, কুমারখালী ঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে এ বছর কলার বাম্পার ফলন হয়েছে। জমিতে বসেই কলার ন্যায্য মূল্য পাওয়ায় কৃষকের মুখে ফুটেছে সোনালী হাসি । ফলনশীল অর্থকারী এই ফসলের সাফল্যে এবং একই ফসলের সাথে একাধিক সাথী ফসল উৎপাদন হওয়ায় কৃষক তামাক ও ভুট্টা চাষের প্রতি আগ্রহ হারিয়েছে। যথাযথ পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এখান থেকেই বৈদেশীক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব বলে মনে করেন কৃষক।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায় উপজেলার বিস্তৃর্ণ জমিতে এবার কলার বাম্পার ফলন হয়েছে। বর্তমানে প্রচলিত ফসল চাষে কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান না হওয়ায় তারা এই সব ফসলের বিকল্প হিসেবে বেছে নিয়েছেন অধিক লাভজনক ফসল কলা চাষ। কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এবার কুমারখালী উপজেলার প্রায় ৪ হাজার বিঘা জমিতে বিভিন্ন জাতের কলার চাষ হয়েছে। বিভিন্ন জাতের কলার মধ্যে রয়েছে জয়েন্টগর্ভানর, সাগর ও সর্বি কলা। তরে সিংহভাগ জমিতে চাষ করা হয়েছে সর্বি কলা।  ধান, পাট ও আখসহ প্রচলিত অন্যান্য ফসলের তুলনাই কলাচাষে শ্রম ব্যয় হয় কম, বিক্রি করতেও ঝামেলা নেই বাগান থেকেই বিক্রি হয়। অন্যদিকে কলার বাজারে সহজে ধস নামে না। চড়াঞ্চলের এসব জমিতে অন্যকোন ফসল ভাল না হওয়ায় পুষ্টিকর ফল কলার চাষ দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। কলাচাষের পাশাপশি এখানকার কৃষকরা সাথী ফসল হিসেবে ওল এবং পটল চাষ করে বাড়তি আয় করছে। একই সময়ে একাধিক ফসল চাষের ফলে কৃষকরা বেশী লাভবান হচ্ছেন । ফলে এখানকার কৃষকরা জমির জন্য তিকর তামাক ও ভুট্টা চাষের প্রতি দিন দিন আগ্রহ হারাচ্ছে।
উপজেলার চর আগ্রাকুন্ডা গ্রামের সফল কলাচাষি ইমরান হোসেন, সেকেন জর্দার জানান, তিনি এক যুগেরও বেশী সময় ধরে কলার চাষ করছেন। প্রাথমিক ভাবে প্রধান ফসলের সাথে কিছু সংখ্যক জমিতে সাথী ফসল হিসাবে কলার চাষ শুরু করেন। স্বল্প বিনিয়োগে ও কম পরিশ্রমে কলা চাষে অধিক মুনাফা হওয়ায় তিনি এ ফসলকেই বেছে নিয়েছেন। তার কলা চাষের এ সাফল্য দেখে এলাকার অন্যান্য কৃষকরা এখন কলা চাষের দিকে ঝুঁকছেন। কৃষক আরিফুল ইসলাম বলেন, কলাচাষের জন্য স্বল্পপুঁজি বিনিয়োগ করে অধিক লাভ হয় এবং একবার কলা গাছ লাগালে সেই খরচেই দুই বছর ফল পাওয়া যায়। এক বিঘা জমিতে আড়াইশ থেকে তিন শত কলার গাছ লাগাতে ব্যয় হয় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা। যা থেকে বছর শেষে আয় হবে প্রায় লাখ টাকা। কলার চাষ করলে কলা বিক্রির পাশাপাশি কলা গাছের চারাও বিক্রি করা যায়।
কৃষক রবিউল ইসলাম বলেন, কলা বিক্রি করতে তাদের কোন সমস্যা হয় না। কারণ হিসাবে তিনি জানান, পাইকারী ব্যবসায়ীরা কলার বাগান থেকেই ন্যায্য মূল্যে কলা ক্রয় করে নিয়ে যায়। কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর থেকে তাদেরকে কলা চাষের উপর প্রশিণ দেওয়া হলে আরো অধিক লাভবান হবেন বলেও তিনি জানান।
এ ব্যপারে কুমারখালী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তামাক চাষের তিকর দিক তুলে ধরে বলেন, তামাক ও রুট্টা চাষ করলে মাটির গুনাগুন নষ্ট হয়ে যায়। ঐ জমিতে অন্যকোন ফসল ভাল হয়না। অল্প বিনিয়োগে অধিক মুনাফা অর্জন করায় এখানকার কৃষকরা কলা চাষের প্রতিই বেশী উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে।
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু
স্টাফ রিপোর্টার : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বজ্রপাতে সিরাজ উদ্দীন (৩০) নামে এক কৃষক মারা গেছেন। মঙ্গলবার বিকাল ৫ টার দিকে উপজেলার বোয়ালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে এ ঘটনা ঘটে।
এ সময় আরো দুই জন আহত হন। তাদের দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রত্যদর্শীরা জানায়, বোয়ালিয়া গ্রামের মৃত সমির উদ্দীনের ছেলে সিরাজ উদ্দীন ও একই গ্রামের আলম মণ্ডলের দুই ছেলে কামাল (২০) ও হাবিল (২৩) মাঠ থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির সঙ্গে হঠাৎ বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে সিরাজ মারা যান। এ সময় আহত অবস্থায় দুই ভাই কামাল ও  হাবিলকে উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

364 total views, 2 views today

kushtiardiganta
By kushtiardiganta August 9, 2014 06:39