বেসরকারি বিনিয়োগে স্থবিরতা

Kushtiar Diganta
By Kushtiar Diganta July 2, 2017 13:16

577,024 total views

কুষ্টিয়ার খবর

  • “আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস”এর হাকিকত kushtia Hashem Mawlana

    -অধ্যাপক মাওঃ আবুল হাশেম আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসের তাৎপর্য ঃ আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাসকে কুরআন-হাদীসের পরিভাষায় যথাক্রমে ‘তাওয়াক্কুল আলাল্লাহ’ ও ‘ঈমান বিল্লাহ’ বলা হয়। আর এ দুটি ঈমানের মৌলিক অংশের সাথে ওৎপ্রোত ভাবে জড়িত। আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস ছাড়া ঈমান পূর্ণতা লাভ করতে পারে না। তাই আল্লাহর ওপর ঈমান আনা যেমন ফরজ তেমনি পূর্ণ আস্থা স্থাপন করাও ফরজ। এটা তাওহীদের সর্বোচ্চ স্তর ও সর্বোত্তম এবাদত। 54,930 total views, 170 views today

    54,930 total views, 170 views today

  • ২৪ আগষ্ট সদরপুর ইউনিয়নের নির্বাচন চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল nik

    স্টাফ রিপোর্টার॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছে। গতকাল সোমবার মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী সদরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিয়াত আলী লাল মাষ্টার, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও সদরপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান রবিউল হক, বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী সদরপুর ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি মোশারফ হোসেন মুসা, বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী ছেকের আলী, সদরপুর ইউনিয়ন জামায়াতের পূর্ব শাখার সভাপতি ডাঃ রুহুল আমিন, 54,908 total views, 170 views today

    54,908 total views, 170 views today

  • ২ দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২০, আহত শতাধিক acsident

    নিজস্ব প্রতিনিধি : ২দিনে সড়ক দূর্ঘটনায় সারাদেশে ২০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে শতাধিক ব্যক্তি। সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে এ দূর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ঘটে। সিলেটের দণি সুরমায় বুধবার ভোররাতে একটি বাস খাদে পড়ে চার জনের মৃত্যু হয়েছে। দণি সুরমা থানার ওসি মো. মোরছালিন জানান, নূর আনন্দ পরিবহনের বাসটি ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে যাওয়ার পথে বুধবার ভোররাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের অতিরবাড়ি এলাকায় দুর্ঘটনায় পড়ে। তিনি জানান, চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক কিশোরী, এক নারী ও দুই পুরুষ যাত্রী নিহত হন। আহত হন আরো অন্তত ২০ জন। 54,943 total views, 170 views today

    54,943 total views, 170 views today

  • ১৪ হাজার হেক্টর জমির ফসল হারিয়ে দিশেহারা কুষ্টিয়ার হাজারো কৃষক kushtia vagitable

    স্টাফ রিপোর্টার : কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে তছনছ কুষ্টিয়ার ৪ উপজেলার অন্তত ১৫টি ইউনিয়ন। ঝড় আর শিলাবৃষ্টি বদলে দিয়েছে এ জেলার কৃষিখাতের চিত্র। ১৪ হাজার হেক্টর জমির ফসল হারিয়ে হাজারো কৃষক এখন দিশেহারা। বাড়ি-ঘর আর ফসল হারিয়ে নিঃস্ব প্রায় ১০ হাজার কৃষক এখন মানবেতর জীবনযাপন করছেন। কৃষি অধিপ্তরের তথ্যমতে, ৮ হাজার হেক্টর জমির ধান, ভুট্টা, করল্লা, পান, শসা, তামাক, গম ও মরিচ সহ অর্থকরী ফসল একেবারেই ধ্বংস হয়ে গেছে। 54,897 total views, 170 views today

    54,897 total views, 170 views today

  • হরতালের সমর্থনে কুষ্টিয়ায় শিবিরের পিকেটিং ও মিছিল kushtia town sibi misil

    স্টাফ রিপোর্টার: ২০ দলীয় জোটের ডাকা অবরোধের পাশাপাশি আহুত ৭২ ঘন্টা হরতালের সমর্থনে কুষ্টিয়ার বড় বাজারে মিছিল ও পিকেটিং করেছে ইসলামী ছাত্রশিবির কুষ্টিয়া শহরের নেতাকর্মীরা। সোমবার সকাল ৮ টায় শহরের অফিস সম্পাদক  আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে শহরের বড় বাজারে মিছিল ও পিকেটিং করে নেতাকর্মীরা। 54,883 total views, 170 views today

    54,883 total views, 170 views today

  • হরতালে চলবে ফাযিল পরীক্ষা hortal

    ইবি প্রতিনিধি ॥  জামায়াতের ডাকা ২৪ ঘণ্টার হরতালেও চলবে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিতব্য বুধবারের ফাযিল পরীক্ষা। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আবদুল হাকিম সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। জানা যায়, মানবতা বিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জামায়াতের সেক্রেটারী জেনারেল আলী আহসান 54,872 total views, 170 views today

    54,872 total views, 170 views today

বেসরকারি বিনিয়োগে স্থবিরতা

biniogদিগন্ত ডেস্ক: দেশে বাড়ছে না বেসরকারি বিনিয়োগ। ব্যাংকগুলোতে পড়ে আছে প্রচুর অলস টাকা। এতে অনেক উচ্চাশার প্রবৃদ্ধি হয়ে পড়ছে শুধুই ভোগ ব্যয়কেন্দ্রিক। চলমান পরিস্থিতিকে টেকসই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের ক্ষেত্রে বড় বাধা হিসেবে দেখছেন অর্থনীতিবিদরা। তবে যেকোন নতুন উদ্যোগের শুরুতে গ্যাস বিদ্যুৎ সমস্যার পাশাপাশি আমলাতান্ত্রিক জটিলতা পোহাতে হয় বলে দাবি ব্যবসায়ীদের।
টেকসই প্রবৃদ্ধি আর অর্থনীতির ধারাবাহিক পথচলা স্বাভাবিক রাখতে সব দেশেরই প্রয়োজন পড়ে অভ্যন্তরীণ বিনিয়োগ বৃদ্ধির। ব্যতিক্রম নয় বাংলাদেশও, বিনিয়োগ বাড়াতে নানা পরিকল্পনা আর রূপরেখা আঁকছে সরকার। কিন্তু ৫ বছর ধরেই দেশের মোট বিনিয়োগ এখনও থমকে আছে জিডিপির ২৮-২৯ শতাংশেই।
গত চার বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি কখনোই নামেনি ৬ শতাংশের নীচে, কিন্তু বেসরকারি বিনিয়োগ বেড়েছে গড়ে মাত্র পৌনে এক শতাংশ। ২০১০-১১ অর্থবছরে দেশে ব্যক্তি খাতের বিনিয়োগ ছিলো ২২ দশমিক ১৪ শতাংশ, ৬ বছর পর দাঁড়িয়েছে ২৩ শতাংশে। সংখ্যার হিসেবেই পরিষ্কার, কতটা নাজুক ব্যক্তিখাতের বিনিয়োগ পরিস্থিতি।

অথচ এই মূহুর্তে দেশের ব্যাংকগুলোতে অলস পড়ে আছে প্রায় প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা। নতুন বিনিয়োগ না আসার পেছনে ব্যাংক ঋণে উচ্চ সুদের হার, জ্বালানি সংযোগ পেতে দীর্ঘসূত্রিতা আর প্রশাসনিক দুর্বলতার মতো কারণগুলোকেই বড় করে দেখছেন ব্যবসায়ীরা।

তারা বলেন, বেসরকারি বিনিয়োগ একটা জায়গায় থমকে আছে। তার কারণ হলো জ্বালানী সমস্যার সমাধান আমরা করতে পারছি না। বিদ্যুৎ উৎপাদন আমরা বলছি ১৫ হাজার মেগাওয়াট। কিন্তু ডিস্ট্রিবিউশন লাইন এখনো ঠিক করতে পারি নি।

তারা আরও বলেন, ব্যাংকের কার্যক্রম নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট না। দেশে বিনিয়োগ হচ্ছে না। হাজার হাজার কতি টাকা অলস পরে আছে। ছোট ছোট উদ্যোক্তাদের অর্থ দিতে রাষ্ট্রের কোন যোগান নেই। খুব হতাশাজনক একটা ব্যাপার।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, প্রবৃদ্ধির স্বার্থে বিনিয়োগ বাড়িয়েছে সরকার, কিন্তু নজর কাড়তে পারেনি ব্যক্তিখাতের উদ্যোক্তাদের। এ ধারা চলতে থাকলে টেকসই প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য অর্জন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে বলেও মত তাদের।

অর্থনীতিবিদরা বলেন, যতটুকু বিনিয়োগ পাওয়া যাচ্ছে। তা কাঙ্ক্ষিত মাত্রার থেকে অনেক কম। কখন থেকে এলএনজি সুবিধা বিনিয়োগকারীরা পাবেন তা নিশ্চিত না। বৈশ্বিক পর্যায়ে রপ্তানি খাত সুবিধাজনক না হওয়ার কারণে আমাদের বিনিয়োগকারীরা সুবিধা করতে পারছেন না।

বিবিএস এর শ্রমশক্তি জরিপ বলছে, স্থবির বিনিয়োগ পরিস্থিতির কারণে শেষ দুই বছরে দেশে নতুন কর্মসংস্থান হয়েছে মাত্র ১৬ লাখ মানুষের। অথচ এর আগের এক দশকে প্রতিবছর গড়ে ১৩ লাখ মানুষ পেয়েছে নতুন কর্মসংস্থান।

76 total views, 2 views today

Kushtiar Diganta
By Kushtiar Diganta July 2, 2017 13:16