ঢাকাSaturday , 24 October 2020
  1. epaper
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইতিহাস ঐতিহ্য
  6. ইসলামি দিগন্ত
  7. কুষ্টিয়ার সংবাদ
  8. কৃষি দিগন্ত
  9. খেলাধুলা
  10. গণমাধ্যম
  11. জনদূর্ভোগ
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. দিগন্ত এক্সক্লুসিভ

কুষ্টিয়ার গুরুত্বপূর্ণ ফুটপাত এখন ব্যবসায়ীর দখলে 

Link Copied!

কুষ্টিয়া থানা ট্রাফিক মোড় টিএন্ডটি রোড সংলগ্ন আগা ইউসুফ সড়কের কিছু সংখ্যক দোকানদার ফুটপাত দখল করে রেখেছে। এতে পায়ে হাঁটা পথচারীদের চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। এবিষয়ে কুষ্টিয়া পৌরসভার কিছু দোকানী অভিযোগ করলেও কোন ফল পাইনি। শুধু এই সড়কটি নয় কুষ্টিয়া শহরের অধিকাংশ সড়কের পায়ে চলাচলের ফুটপাত এখন বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা দখল করে রেখেছে। এই ফুটপাত দখলমুক্ত করতে পৌর কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন সাধারণ মানুষ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, থানা ট্রাফিক মোড় আগা ইউসুফ সড়কে ফুলের দোকানদার, নান্না বিরিয়ানি, হাজী বিরিয়ানি সহ বিভিন্ন হোটেল ও দোকানের সামনে ফুটপাত দখল করে রেখেছে। এতে জনসাধারণের চলাচলে বিঘ্ন সহ অন্যান্য দোকানদারগণ ব্যবসায়ীক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এবং পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। এবিষয়ে দোকানদারদের ফুটপাত ছেড়ে দিতে বললে খারাপ আচরণ করে। ফুটপাত খালি করে জনসাধারণের পায়ে হাঁটা সহ দোকানদারদের ব্যবসা করার সুযোগ দান করতে পৌর কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করে। এবিষয়ে ১৩ জন দোকানদার ফুটপাত উচ্ছেদের পক্ষে স্বাক্ষর করেন।

এদিকে সরোজিনে গিয়ে দেখা যায়, পায়ে হাঁটা ফুটপাত এখন কিছু ব্যবসায়ী দখল করে রেখেছে। অধিকাংশ পথচারী মূল সড়ক দিয়ে চলাচল করছে। এতে সড়কে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। ফুটপাত দিয়ে হাঁটতে গিয়ে দোকানদারদের দুর্ব্যবহারের শিকার হচ্ছে অনেকেই। প্রায়ই এনিয়ে হট্টগোলের সৃষ্টি হচ্ছে। এদিকে মূল সড়ক দিয়ে হাঁটতে গিয়ে দুর্ঘটনা কবলে পড়ছে অনেকেই।

সেখানে বেশকিছু দোকানী অভিযোগ করেন কিছু ব্যবসায়ী ফুটপাত দখল করে রেখেছে এই জন্য আমাদের ব্যবসা করতে সমস্যা হচ্ছে। পায়ে হাঁটা পথচারীরা বাধ্য হয়ে মূল সড়ক দিয়ে হাঁটছে। এতে সড়ক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে।
কুষ্টিয়া পৌরসভার নগর পরিকল্পনাবিদ রানভীর আহমেদ এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, ফুটপাত মানুষের হাঁটার জন্য।এখন সড়কে কাজ চলছে। কাজ শেষ হলেই আমরা ফুটপাত দখলমুক্ত করতে কাজ শুরু করবো।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।