ঢাকাFriday , 30 October 2020
  1. epaper
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইতিহাস ঐতিহ্য
  6. ইসলামি দিগন্ত
  7. কুষ্টিয়ার সংবাদ
  8. কৃষি দিগন্ত
  9. খেলাধুলা
  10. গণমাধ্যম
  11. জনদূর্ভোগ
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. দিগন্ত এক্সক্লুসিভ

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে কুষ্টিয়াতে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল

Link Copied!

রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠাপোষকতায় ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ইসলামী আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলা শাখা। বুধবার বাদ আছর মিছিলটি কুষ্টিয়া বড় বাজার জামে মসজিদ থেকে শুরু করে বক চত্বর হয়ে পাঁচ রাস্তার মোড়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ ও দোয়ার মাধ্যমে শেষ করা হয়। এর আগে বড় বাজার এলাকায় জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে যানবাহন ও পায়ে হেটে মানববন্ধন স্থলে আসে তৌহিদি জনতা। সংক্ষিপ্ত সমাবেশে জেলা সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আহাম্মাদ আলীর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী আলহাজ্ব শেখ এনামুল হকের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলা শাখার সহ সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ আখন্দ, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ দেওয়ান আব্দুল খালেক, ইসলামী যুব আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি মোঃ ওমর ফারুক, ইশা ছাত্র আন্দোলন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি ছাত্রনেতা নাজমুছ ছলিহীন, কুষ্টিয়া জেলার সভাপতি ছাত্রনেতা আনোয়ারুল করীম বিপ্লব প্রমূখ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন কুষ্টিয়া জেলার জয়েন্ট সেক্রেটারী মুঃ আব্দুল মোমিন, সহ-সাংগাঠনিক সম্পাদক মুফতি মাহফুজুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মোঃ গোলাম তাওহীদ, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি ফরিদ উদ্দিন আবরার, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক হাফেজ তাওহিদুল ইসলাম, মোঃ জাহিদুল ইসলাম, মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ মোস্তফা কামাল, মাওঃ আব্দুল মালেক নূরাণী প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হয়েছে। এর আগে দেশটির একটি ম্যাগাজিন একই ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে বিশ্ব মুসলিমের আবেগ-অনুভূতিতে আঘাত করেছে। ফলে মুসলিম উম্মাহ বিক্ষুব্ধ ও প্রতিবাদ মুখর হয়ে উঠেছে।
বক্তারা আরো বলেন, ফ্রান্সের একজন শিক্ষক বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (স.) এর কার্টুন তৈরি করে এই ন্যক্কারজনক ঘটনার সূত্রপাত করেছিল। যা মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটিয়েছে। ফ্রান্স সরকার নবীর বিরুদ্ধে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের মাধ্যমে বিশ্বমুসলিমকে উস্কে দিয়ে বিশ্বব্যাপী অশান্তির আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে। ফ্রান্সের ধর্মবিরোধী এ অবমাননা বিশ্বমুসলিম নেতৃত্বকে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দিতে হবে। বক্তারা বলেন, ফ্রান্স সরকারকে অবিলম্বে এ ধৃষ্টতাপূর্ণ ব্যঙ্গচিত্র প্রচারনা বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে প্রতিবাদের দাবানল ছড়িয়ে পড়বে। মুসলমানরা তাদের নবীকে প্রাণের চেয়ে বেশি ভালোবাসে। মহানবীর অপমান মুসলমানরা সহ্য করবে না। বক্তারা ফ্রান্সের সব পণ্যবর্জন করার আহবান জানান।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।