ঢাকাWednesday , 15 July 2020
  1. epaper
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইতিহাস ঐতিহ্য
  6. ইসলামি দিগন্ত
  7. কুষ্টিয়ার সংবাদ
  8. কৃষি দিগন্ত
  9. খেলাধুলা
  10. গণমাধ্যম
  11. জনদূর্ভোগ
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. দিগন্ত এক্সক্লুসিভ

কুমারখালীর পুঁটিয়ার ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনাটি ধর্ষন! নাকি অর্থ হাতিয়ে নেবার চেষ্টা

Link Copied!

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পুঁটিয়া গ্রামের অটোচালক বাবুর মেয়েকে ধর্ষন করেছে এমন অভিযোগ এনে মামলা করে মিটমাটের জন্য পাঁচ লক্ষ টাকা দাবি করেছে মেয়েটির পরিবার। সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে পুঁটিয়া গ্রামের বাবুর মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে কুমারখালী পৌর সভার সাবেক কমিশনার মিলনের ছেলে রাসেল। এরই মধ্যে গতমাসের ২৫ তারিখে আলাউদ্দিন নগরের কালুমোড় এলাকাতে সুকৌশলে মেয়েকে দিয়ে এলাকার লম্পট বাহার নামে এক কথিত দালাল ডেকে আনে বলে রাসেল জানান সেইদিনই। এরপর বাহারের নেতৃত্বে কয়েকজন তাকে মারপিট করে মোবাইল ফোনসহ ম্যানিব্যাগ কেড়ে নেয়। এর পরের দিন কুমারখালী থানাতে ধর্ষনের অভিযোগ এনে সেই বাহার মেয়েটিকে ও তার বাবাকে সাথে নিয়ে মামলা করতে আসে। কিন্তু কুমারখালী থানা মামলা নেয়নি। তারপর বাহার তাদের সাথে করে কুষ্টিয়া মডেল থানাতে ধর্ষন মামলা করে। মামলা এন্টি হবার পর পরই শুরু হয় বাহারের নেতৃত্বে মিটমাটের জন্য দর কষাকষি। সাবেক কমিশনার ও রাসেলের পিতা মিলন জানান, আমার ছেলে এমন কিছু করেনি, তবে তারা যেহেতু প্রেমের সম্পর্ক করেছে সে ক্ষেত্রে আমি তাদের বিয়েও দিতে চেয়েছি। কিন্তু তারা বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে ৫ লক্ষ টাবার দাবি করে আসছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবারে নন্দলালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে এটা সমাধানের জন্য দুইপক্ষ বসলে মেয়ে পক্ষ থেকে সর্বশেষ চার লক্ষ টাকা দাবি করলে রাসেলের পক্ষ না মেনে উঠে চলে আসে। তবে এলাকাবাসী বলছে, এমন ঘটনা আলোচনা হবার পর স্থানীয় লম্পট ও নেশাখোর বাহারসহ কয়েকজন মেয়েটির বাবাকে নানা কিছু বুঝিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতেই এমন কিছু করছে। অপরদিকে গত মাসের ২৫ তারিখে রাসেলের ওপর হামলা করায় বর্তমানে সে রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলেও জানান রাসেলের বাবা মিলন।

উল্লেখ্য, ২৫ তারিখে রাসেলের ওপর হামলা হবার পরপরই সাংবাদিকরা মেয়েটিকে জিঙ্গাসাবাদ করলে মেয়েটি জানান, ওই ছেলেকে আমি চিনি না, একদিন আলাউদ্দিন মোড়ে দেখা হলে জোর করে আমাকে অটোর মধ্যে তুলে পাশে বসিয়ে ছবি তুলে। পরে ফোন করে আমাকে দেখা করতে বলে আর তাই আমি আমার ভাইদের বললে ওকে ডেকে আনতে বলে যেনো ফোনটা নিয়ে ছবিগুলা ডিলেট করে দিতে পারি। ওর সাথে আমার কোন প্রেমের সম্পর্কও নেই ( রেকোডিং সংরক্ষিত)। অথচ সাংবাদিকদের কাছে এমন বক্তব্য দেবার পরের দিনই ধর্ষনের অভিযোগ এনে মেয়ের বাবা বাদী হয়ে মামলা করে। আবার সেটা মিটমাটের জন্যও ৫ লক্ষ টাকা দাবী করে । বিষয়টি রহস্যজনক বলেও মনে করছে সচেতন মহল।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।