শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১০:২৬ অপরাহ্ন

মিরপুরে আবাদি জমিতে টিনের চিমনির চুল্লি বসিয়ে চলছে ইটভাটা

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৪৪০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২০, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার মলিহাদ ইউনিয়নের গোপিনাথপুর পাগলা গ্রামে আবাদি জমির মাঝখানে আইন অমান্য করে ইটভাটা নির্মাণ করা হয়েছে। মৌসুম শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নতুন করে আরও অনেক ইটভাটা গড়ে উঠছে আবাদি জমিতে। খাদ্য উৎপাদনে উদ্বৃত্তে কুষ্টিয়া জেলায় ইটভাটার কারণে এবার পিছিয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ১৯৮৯ সালের ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ আইন (সংশোধিত ২০০১) অনুযায়ী সংরক্ষিত বনাঞ্চল, আবাদি জমি ও জনবসতিপূর্ণ এলাকার তিন কিলোমিটারের মধ্যে ইটভাটা স্থাপন এবং ইট পোড়ানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। কিন্তু গোপিনাথপুর পাগলা গ্রামে আবাদি জমির মাঝখানে করা হয়েছে এম.এম.এস বি টিনের চিমনির চুল্লি নামক ইটভাটা। সেখানে সেখানে দেদারছে পোড়ানো হচ্ছে কাঠ।
পরিবেশ অধিদফতর থেকে কোনো ছাড়পত্রও নেয়া হয়নি বলে জানান সয়ং ভাটা মালিকরা নিজেই। ইটভাটার আশপাশে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের আবাদ। ইটভাটার ধোঁয়া, গ্যাস, ধুলাবালির কারণে এসব খেতের ফসল উৎপাদন ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষক।
মঙ্গলবার সরেজমিন কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের গোপিনাথপুর পাগলা গ্রামের দেখা যায়, টিনের চিমনির চুল্লি বসিয়ে আবাদি জমিতে পোড়ানো হচ্ছে ইট।
জানা যায়, একসময়কার কাপুর ব্যবসায়ী মইন উদ্দিনের ইটভাটা। এদিকে মইন উদ্দিন প্রভাবশালী হওয়ায় আশপাশের জমির মালিকরা কথা বলতে সাহস পাইনি।
তবে তারা জানান, ভাটার কারণে জমিতে ফসল উৎপাদন কমে গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইটভাটার দক্ষিণ দিকের এক একর জমির মালিক বলেন, ‘শুনেছি, আবাদি জমির মধ্যে ইটভাটা নির্মাণ করা বেআইনি কাজ। তা হলে এ ইটভাটা কীভাবে হচ্ছে?’ ইটভাটার মালিক মইন উদ্দিন বলেন, এবছর প্রথম আমি এই ভাটা লিজ নিয়েছি। ইট ভাটা চালাতে কি কি কাগজ লাগে তা আমার জানা নেই। তবে কয়েকজনের কাছে শুনেছি ভ্যাট অফিসের কাগজ থাকলেই হয়। নিউজ না করার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।
পরিবেশ অধিদপ্তর কুষ্টিয়া সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান জানান, কুষ্টিয়াতে মোট ১৪৫ থেকে ১৫০ টি ইটভাটা রয়েছে। এরমধ্যে ৪০ টি ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র রয়েছে। বাকিগুলো সব অবৈধ। ইতিমধ্যে আমরা অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছি। এবছর (আজ পর্যন্ত) ৩ টি ইটভাটায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে। আজ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর সাথে কথা হয়েছে পর্যায়ক্রমে সবগুলো অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর