ঢাকাSaturday , 15 May 2021
  1. epaper
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইতিহাস ঐতিহ্য
  6. ইসলামি দিগন্ত
  7. কুষ্টিয়ার সংবাদ
  8. কৃষি দিগন্ত
  9. খেলাধুলা
  10. গণমাধ্যম
  11. জনদূর্ভোগ
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. দিগন্ত এক্সক্লুসিভ

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের প্রয়োজনে নতুন রেলপথ স্থাপন

Link Copied!

ব্রিটিশ আমলের বিনা পয়সার ট্রেন ‘পাইলট’ চলাচলের পরিত্যক্ত রেললাইন সরিয়ে সেখানে আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন নতুন রেলপথ নির্মাণ করা হচ্ছে। ঈশ্বরদী থেকে সাঁড়া গোপালপুর-সিবেলহাট হয়ে পাকশী পর্যন্ত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্পের মালপত্র পরিবহনের জন্য প্রায় তিনশ’ কোটি টাকা ব্যয়ে এই নতুন রেলপথ স্থাপন করা হচ্ছে।
রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পর্যন্ত ট্রেন চলাচল করতে ঈশ্বরদী বাইপাস স্টেশন থেকে পরিত্যক্ত পাইলট লাইন হয়ে ২২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ কাজ দ্রুত এগোচ্ছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২২ কিলোমিটার রেলপথ ছাড়াও সাড়ে চার কিলোমিটার লুপপথ নির্মাণ হবে। রূপপুর প্রকল্পের প্রয়োজনে পরিত্যক্ত পাইলট লাইন উঠিয়ে এখানে নতুন রেলপথের নির্মাণ কাজ চলছে।
উল্লেখ্য, ১৯১৫ সালে রেলসেতু পাকশীর হার্ডিঞ্জ ব্রিজ স্থাপনের কিছুদিন পর তৎকালীন সময়ে সাঁড়াঘাটের বরফকল থেকে বরফ পরিবহন করার জন্য ব্রিটিশ রেল কর্তৃপক্ষ প্রথমে এখানে রেলপথ স্থাপন করে। পরে রেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মস্থলে যাতায়াতের প্রয়োজনে এই রেলপথ দিয়ে ‘পাইলট’ নামের বিনা পয়সার একটি ট্রেন চালু করা হয়। টিকিট কাটার প্রয়োজনীয়তা না থাকায় রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে স্থানীয় সাধারণ মানুষও বিনা পয়সায় চলাচল করতেন এই পাইলট ট্রেনে।
নব্বইয়ের দশকের শুরুতে তৎকালীন সময়ে রেলপাত চুরি হওয়ার অজুহাতে পাইলট ট্রেন বন্ধ করে দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এর পর থেকে এই রেলপথে শুধু রেলের বিভাগীয় কর্মকর্তাদের মোটর ট্রলি মাঝেমধ্যে চলাচল করত। নব্বইয়ের দশকের পর থেকে এই রেলপথে কোনো ট্রেন আর চলেনি।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।