রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন

সরকার ও মালিকরা জিতলো, ঠকলো জনগণ

দিগন্ত অনলাইন / ৩৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১, ১:৩৩ পূর্বাহ্ন

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর সব পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে গণপরিবহন ও লঞ্চের ভাড়া পুনর্নিধারণ করা প্রয়োজন থাকলেও সরকার বরাবরের মতোই পরিবহন-লঞ্চ মালিক ও তাদের সিন্ডিকেটদের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ভাড়া বৃদ্ধি করে জনগনের কাঁধে বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (বাংলাদেশ ন্যাপ) নেতারা। পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, সরকারও জিতলো পরিবহন মালিকরাও জিতলো, মাঝখানে ঠকলো হতভাগা জনগণ। এ ভাড়া বৃদ্ধি জনগনের সাধে চরম নিষ্ঠুরতা।

তারা বলেন, অবৈধ ও জনগণের স্বার্থ বিরোধীভাবে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম ২৩ শতাংশ বাড়িয়েছে সরকার। এ অজুহাতে বাস-ট্রাক ও লঞ্চের মালিকেরা ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে পরিবহন ধর্মঘটের নামে জনগণকে জিম্মি করে ডিজেল চালিত যানবাহনের পাশাপাশি সিএনজি, অকটেন ও পেট্রোল চালিতসহ সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। জ্বালানী তেলের মূল্য ২৩ শতাংশ বাড়লেও ভাড়া বেড়েছে লঞ্চের ৩১ শতাংশ আর গণপরিবহনের ২৬ শতাংশ। যা লুটেরাদের পক্ষে সরকারের অবস্থানকেই প্রমাণ করে।

নেতারা আরও বলেন, জনগণের কোনো দায়-দায়িত্ব নিচ্ছে না। এরই ধারাবাহিকতায় সরকার রাতের অন্ধকারে ডিজেল-কেরাসিন তেল-এলপিজি গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে। জনগণের স্বার্থ চিন্তা না করে গণপরিবহন ও লঞ্চের ভাড়াও বৃদ্ধি করেছে। দেশে যখন করোনা মহামারি চলছে মানুষের ক্রয় ক্ষমতা হ্রাস পাচ্ছে, জীবন দুর্বিষহ হয়ে যাচ্ছে ঠিক সেই মুহূর্তে দাম বৃদ্ধি করা মরার ওপর খাড়ার ঘাঁ।

তারা আরও বলেন, ইতোমধ্যেই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম ক্রমাগতভাবে বেড়ে চলছে। এ মুহূর্তে তেলের ও এলপিজির মূল্যবৃদ্ধি এবং গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি সাধারণ মানুষের জীবন-জীবিকাকে আরও সংকটের মধ্যে নিয়ে যাবে। দেশের অধিকাংশ গণপরিবহন যেখানে গ্যাস চালিতে সেখানে ভাড়াবৃদ্ধি কতটা যৌক্তিক সে প্রশ্ন তোলেন নেতারা।

নেতারা আরও বলেন, তেলের মূল্যবৃদ্ধি ও গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির আঘাত পড়বে দেশের সাধারণ মেহনতি মানুষের ওপর। সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি, লুটপাটের আর্থিক দায় জনগণের কাঁধে চাপাতেই জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি ও গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি। তারা করোনা পরিস্থিতিতে পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশের সাধারণ মানুষের কথা ভেবে পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিল করা উচিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর