ঢাকাMonday , 19 October 2020
  1. epaper
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. ইতিহাস ঐতিহ্য
  6. ইসলামি দিগন্ত
  7. কুষ্টিয়ার সংবাদ
  8. কৃষি দিগন্ত
  9. খেলাধুলা
  10. গণমাধ্যম
  11. জনদূর্ভোগ
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. তথ্য প্রযুক্তি
  15. দিগন্ত এক্সক্লুসিভ

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতির স্ত্রীর আত্মহত্যা

Link Copied!

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার যদুবয়রা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও চাঁদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক রাকিবুল আলম মামুনের স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস তুলির (২৫) বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে জানাগেছে। তবে নানা মহলে বিভিন্ন প্রত্রিক্রা দেখা দিচ্ছে। কেউ কেউ বলছে জোর করে বিষপান করিয়ে হত্যা করাও হতে পারে।

মেয়ের পারিবারিক সুত্রে জানাযায়, প্রায় তিন বছর আগে যদুবয়রা ইউনিয়নের লক্ষীপুর বহলবাড়িয়া গ্রামের ফারুক মাষ্টারের ছেলে রাকিবুল আলম মামুনের সাথে শৈ্লকুপা উপজেলার শিংনগর আগুনেপাড়া গ্রামের আকবার আলি মাষ্টারের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস তুলির পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। রাকিবুল আলম মামুন যদুবয়রা ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও গোবরা চাদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

জানাযায়, বিয়ের পর থেকেই রাকিবুল তার নিজের এক ছাত্রীদের সাথে অনেক রাত জেগে ঘন্টার পর ঘণ্টা কথা বলতো। রাকিবুলের স্ত্রী নিষেধ করলেও স্বামী রাকিবুল তা কোন রকম কর্নপাত করতো না। এই নিয়ে তাদের সংসারে দীর্ঘদিন যাবত অশান্তি চলে আসছিল। গত ১২/১০/২০২০ ইং তারিখে রাকিবুলের স্ত্রী তুলি মাঝরাতে ঘুম থেকে উঠে দেখে তার স্বামী মোবাইলে কথা বলছে। স্ত্রী কিছুই না বলে পরের দিন ১৩/১০/২০২০ সকালে স্বামীর মোবাইল থেকে গোপনে নাম্বার বের করে নিজের ফোন দিয়ে ঐ মেয়ের কাছে কল করে অনেক কথা কাটাকাটি করে, এক পর্যায় রাকিবুল মাঠ থেকে বিকেলে বাসায় ফিরে জানতে পারলে তার স্ত্রীকে বেধরক পিটুনি দেয় এবং বউয়ের মোবাইল ফোন আছার দিয়ে ভেঙ্গে ফেলে।

তখন তুলি তার বাবার কাছে বিষয়টি জানায় আর বলে বাবা তুমি আমাকে এখান থেকে নিয়ে যাও | তুলির বাবা অভিমান করে বলে আমি যেতে পারবো না । বাবা এই কথা বলার পর তুলি ঘরে ঢুকে জমিতে দেওয়া বিষ পান করে এবং তার মায়ের কাছে ফোন দিয়ে বলে মা তোমরা তো আমাকে নিয়ে গেলে না আমি এখন বিষ খেয়ে তোমার সাথে কথা বলছি ।সাথে সাথে বাসার লোকজন জানতে পেরে তুলিকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করে | ১৬/১০/২০২০ ইং তারিখে তুলির অবস্থার অবনতি ঘটলে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকগন রুগিকে ঢাকাতে রিফাট করে।ঢাকা আইসিইউতে ভর্তি অবস্থায় ১৮/১০/২০২০ ইং তারিখ রাত আনুমানিক ২ ঘোটিকার সময় তুলির মৃত্যু হয়। লাশ কুষ্টিয়া পোষ্ট-মর্ডানে পাঠানো হয়েছে।

তবে কিছু কিছু মানুষ বলছে, পারিবারিক কলহের জের ধরে এমন আত্মহত্যা হতে পারে।

এ ব্যাপারে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ জানান, কুমারখালী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলাও হয়েছে। মামলা নং ০৫, তাং ১৯/১০/২০২০। পরবর্তীতে লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।